নৌকা আর জাল নিয়ে প্রস্তুত জেলেরা

নৌকা আর জাল নিয়ে প্রস্তুত জেলেরা

এ কে আজাদ,চাঁদপুর : মা ইলিশ সংরক্ষণ কর্মসূচীর সফল সমাপ্তি হচ্ছে আজ রাত ১২ টায়। নৌকা আর জাল নিয়ে প্রস্তুত জেলেরা। ২২দিন পর আজ রাত ১২.১ মিনিট থেকে মাছ শিকারে নদীতে নামবে তারা। প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ রক্ষায় চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনায় ১২ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ২২ দিন সকল প্রকার মাছ ধরা নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। মাছ ধরা নিষেদ্ধাজ্ঞা সমাপ্ত হচ্ছে রাত ১২টায়।

তাই জেলেরা তাদের নৌকা, জালসহ মাছ ধরার সরঞ্জাম প্রস্তুতির শেষ মুহূর্তটি পার করছে। মা ইলিশ রক্ষায় এ বছরের সংরক্ষণ কর্মসূচী অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গকরে সফলভাবে সম্পন্ন হতে চলছে। জনগণের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করতে পারলে যে কোন কঠিন কাজের সফলতা সহজভাবে বাস্তবায়ন করা সম্ভব সেটাই প্রমান করেছেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক। মা ইলিশ রক্ষা এ কর্মসূচীই সফলতার জ্বলন্ত উদাহরন। চাঁদপুরের জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, সুশিল সমাজ এ বছরের মা ইলিশ সংরক্ষণ কর্মসূচীতে জেলেদের মাঝে ব্যাপকভাবে সচেতনতা সৃষ্টির উপর জোর দিয়েছেন। সকলে সম্মিলিতভাবে বিভিন্ন এলাকায় সভা সমাবেশ করে জেলেদের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করেছে বলেই এ সফলতা এসেছে।

আরো প্রশংসিত হয়েছে এ কর্মসূচীর সাথে সংযুক্ত জেলা টাস্কফোর্স, জেলা ও উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তর কোস্ট গার্ড, নৌ পুলিশ সহ সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলো। এদিকে ইলিশ সংরক্ষণ কর্মসূচী চলাকালীন সময়ে অসাধু জেলেরা যাতে নদীতে মাছ শিকারে নামতে না পারে সে জন্য সার্বক্ষণিক পুরো অভয়াশ্রম এলাকায় ছিল প্রশাসনের কড়া নজরদারী।

পালাক্রমে ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ, মৎস্য অধিদপ্তর, কোস্টগার্ড ও নৌ পুলিশের সহযোগিতায় সার্বক্ষণিক অভিযান চলামান ছিল। পাশাপাশি জেলেরা যাতে মা ইলিশ শিকার করতে নদীতে না যায়, সে জন্য তাদের সচেতনতা তৈরীর লক্ষ্যে সভা সমাবেশ অব্যাহত ছিল। এরফলেই চাঁদপুরে মা ইলিশ রক্ষায় সংরক্ষণ কর্মসূচী বিগত বছরগুলোকে পিছনে ফেলে, এ বছরে শতভাগ সফলতা এনে দিয়েছে।

এসবিসি/একেএ/কেএ