নিহতদের ১০ হাজার টাকা অনুদান

নিহতদের ১০ হাজার টাকা অনুদান

এসবিসি, মাদারীপুর : ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের মাদারীপুর জেলার কালকিনির পান্তাপাড়া নামক স্থানে বরিশালগামী ঈগল পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গভীর খাদে পরে যায়। প্রায় ৩০ ফুট গভীরতা সম্পন্ন খালটি পানিপূর্ণ থাকায় বাসটি সম্পূর্ন পানিতে ডুবে যায়।

শনিবার ভোরে এই দূর্ঘটনা ঘটে। দূর্ঘটনায় প্রায় ২৫জন যাত্রী আহত হন। এদের মধ্যে ২০জনকে মাদারীপুর, কালকিনি, বরিশাল শেবাচিমে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদেরকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
সকাল ৯টায় ডুবুরীদল উদ্ধার অভিযানে নেমে ২জনকে মৃত উদ্ধার করে। সংশ্লিষ্টদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী এখনো আরো ৮জন যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন।

নিহতরা হলেন বরগুনা জেলার ফুলঝুরি গ্রামের স্কুল শিক্ষক কামাল হোসেন (৩৫) ও একই এলাকার জাফর ইকবাল (৩২)।
এদিকে নিহতদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অনুদান দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে প্রশাসন।

0এলাকাবাসী, আহত যাত্রী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা থেকে বরিশালের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা ঈগল পরিবহণের একটি যাত্রীবাহী বাস ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের কালকিনির পান্তাপাড়া নামকস্থানে আসলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদের মধ্যে পড়ে যায়।

ঘটনার খবর পেয়ে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বরিশাল থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরদল ঘটনাস্থলের পৌঁছে উদ্ধার অভিযান শুরু করে।

মাদারীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সরোয়ার হোসেন জানান, নিখোঁজদের উদ্ধারে খুলনা নৌবাহিনীর ১০ সদস্যদের ডুবুরি দল ও বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের ৪ সদস্যদের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে।

কালকিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. শাম্মী আক্তার জানান, বাসটি পানির নিচ থেকে উদ্ধার করে  উপরে তোলা হয়েছে। গাড়ির মধ্যে কোন লাশ ছিল না। তবে উদ্ধার তৎপরতা চলবে এবং নিহতদের পরিবারকে ১০ হাজার ও আহতদের চিকিৎসা ব্যয় উপজেলা প্রশাসন বহন করবে।

এসবিসি/ইএ/এএস