বিএনপিকে পেটাল আওয়ামী লীগ

বিএনপিকে পেটাল আওয়ামী লীগ

এসবিসি ডেস্ক : বরিশালে পুলিশের সামনেই বিএনপির নেতাকর্মীদের লাঠিসোটা দিয়ে বেধড়ক পিটিয়েছে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা। এতে বিএনপির অন্তত ৫০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। আজ সকালে নগরীর সদর রোড অনামী লেনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

বিএনপি নেতা আনোয়ারুল হক তারিন জানান, সকালে বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ারের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা গণতন্ত্র হত্যা দিবসের মিছিল নিয়ে বের হন। মিছিলে ছিলেন বরিশাল দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি এবায়দুল হক চাঁন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবুল কালাম শাহীন, মহানগরের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জিয়া সিকদারসহ জ্যেষ্ঠ নেতারা। এনটিভি

মিছিলটি নগরীর সদর রোডের অনামী লেনের কাছে পৌঁছালে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা লাঠিসোটা নিয়ে পেছন থেকে হামলা করে। বিএনপির নেতাকর্মীরা দৌড়ে কার্যালয়ে ঢোকার চেষ্টা করেন। সেখানেও গিয়ে তাঁদের লাঠিপেটা করা হয়।

হামলায় এবায়দুল হক চাঁন, আবুল কালাম শাহীন, কামরুন্নাহার রোজী, সংরক্ষিত কাউন্সিলর তসলিমা কালাম পলি, মামুনসহ শতাধিক নেতাকর্মী আহত হন।

বিএনপি নেত্রী কামরুন্নাহার রোজীর ওপর ছাত্রলীগের লাঠিপেটা করার ভিডিওচিত্র ধারণের সময় বেসরকারি টিভি চ্যানেল আইয়ের ক্যামেরাম্যানকে পুলিশ লাঠিপেটা করে। লাঠিপেটায় গুরুতর আহত ওই ক্যামেরাম্যানকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ছাড়া আহত বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে আজাদ নামের একজনকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও অন্যদের সদর হাসপাতালসহ নগরীর বিভিন্ন ক্লিনিকে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

হামলা প্রসঙ্গে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রাজ্জাক দাবি করেন, পরিস্থিতি ঘোলাটে করতে বিএনপির নেতাকর্মীরাই হামলার নাটক সাজিয়েছে। তাঁরা নিজেরাই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটিয়ে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের ওপর হামলার দায় চাপাচ্ছে।

এসবিসি/এএস/কেএ