মন্ত্রিসভায় হজ ও ওমরাহ প্যাকেজ অনুমোদন

মন্ত্রিসভায় হজ ও ওমরাহ প্যাকেজ অনুমোদন

এসবিসি ডেস্ক : এ বছর মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজে যেতে পারবেন। আজ মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে ২০১৮ সালের হজ ও ওমরাহ প্যাকেজ অনুমোদিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তাঁর কার্যালয়ে  অনুষ্ঠিত হয় এ সপ্তাহের মন্ত্রিসভা বৈঠক।  বিকেলে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। বাসস বাংলা

এবার বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজার ও সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭ হাজার ১৯৮ জন পবিত্র হজব্রত পালন করতে পারবেন। সরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রথম প্যাকেজে ৩ লাখ ৯৭ হাজার ৯২৯ টাকা এবং দ্বিতীয় প্যাকেজে ৩ লাখ ৩১ হাজার ৩৫৯ টাকা ব্যয় হবে। বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় বাড়ি ভাড়া ছাড়া ব্যয় নির্ধারণ হয়েছে ১ লাখ ৬৮ হাজার ২৭৭ টাকা। সব হজযাত্রীকে এবার মেশিন রিডএ্যাবল পাসপোর্ট বহন করতে হবে।

একটি হজ এজেন্সি কমপক্ষে ১৫০ জন ও সর্বোচ্চ তিনশ’জন হজযাত্রী প্রেরণ করতে পারবে। একটি বিমানে ৩টি হজ্ব এজেন্সির হজযাত্রী ও ৩ জন মোয়াল্লেম নেয়া যাবে। বেসরকারি হজযাত্রীদের কোরবাণীর টাকা কুপনের মাধ্যমে সৌদি আরবে ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকে জমা দিতে হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, হজব্রত পালনে অনলাইনে প্রথমে প্রাক-নিবন্ধন করতে হবে, যা সেন্ট্রাল এনআইডি ডাটাবেজে সংরক্ষিত থাকবে। এরপর হজযাত্রী আইডি পেতে তাদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। নিবন্ধন ২ বছর পর্যন্ত বহাল থাকবে। এবার পুলিশ ভেরিফিকেশনের প্রয়োজন হবে না কারণ পাসপোর্ট ইস্যুর সময়েই ওই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়।
প্রবাসী বাংলাদেশীরা এনআইডি’র পরিবর্তে তাদের পাসপোর্ট ব্যবহার করে প্রাক-নিবন্ধন করতে পারবেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, মৃত্যু অথবা গুরুতর অসুস্থতা ছাড়া প্রাক-নিবন্ধন পরিবর্তন করা যাবে না। তবে পরিবর্তনের এই হার মোট নিবন্ধনের ৪ শতাংশের বেশি হবে না।

এ বছর বিমান ভাড়া বেড়ে যাওয়া সম্পর্কে ধর্মবিষয়ক সচিব আনিসুর রহমান বলেন, জ্বালানির দাম বৃদ্ধি, ডলারের বিপরীতে টাকার মূল্যমান হ্রাস ও আরো কিছু কারণে বিমান ভাড়া বেড়েছে।

এসবিসি/এসবি