সূদের হার সর্বোচ্চ ৯ শতাংশ

সূদের হার সর্বোচ্চ ৯ শতাংশ

এসবিসি ডেস্ক : অর্থমন্ত্রী এ এম এ মুহিত বলেছেন, ‘ব্যাংকিং খাতে সুদের হার এক মাসের মধ্যে সিঙ্গেল ডিজিটে নিয়ে আসা হবে। ’  আজ সোনারগাঁও হোটেলে জনতা ব্যাংকের বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘মুহিত বলেন, হঠাৎ করেই সুদের হার বেড়ে গেছে, তবে চলতি বছর সুদের হার অবশ্যই সিঙ্গেল ডিজিট হবে। ব্যাংকাররা সুদের হার এক মাসের মধ্যে সিঙ্গেল ডিজিটে কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’ বাসস বাংলা

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব ইউনুসুর রহমান, অর্থ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী এবং জনতা ব্যাংক চেয়ারম্যান লুনা শামসুদ্দোহা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

মুহিত বলেন, নগদ অর্থ সংকট মোকাবেলায় বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে সরকারি সংস্থাগুলোর তহবিলের জামানতের অর্থ বর্তমান সীমা ২৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৫০ শতাংশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সূদের হার এক মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ ৯ শতাংশে নামিয়ে আনার সিদ্ধান্তের জন্যে ব্যাংকারদের অভিনন্দন জানান অর্থমন্ত্রী।

গভর্নর ফজলে কবির বলেন, বৃহৎ ঋণের চেয়ে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ঋণ গ্রহিতাদের ঋণ আদায় হার তুলনামূলক ভালো। এ জন্য তিনি বৃহৎ ঋণের পরিবর্তে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ঋণের প্রতি গুরুত্ব দেয়ার জন্য ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দেন। তিনি ব্যাংকের লোকসানি শাখাগুলোর লোকসান কমিয়ে আনতে কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ এবং সকল স্তরে সুশাসন প্রতিষ্ঠার আহবান জানান।

সিনিয়র সচিব ইউনুসুর রহমান গ্রাহকদের মাঝে ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার জন্য সর্বোত্তম গ্রাহক সেবা প্রদানে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, রাষ্ট্রীয় ব্যাংকগুলোর কর্মকর্তারা মেধাবী। নিয়োগ পরীক্ষায় প্রতিযোগিতার মাধ্যমে তাদের নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। যাতে তারা সহজেই গ্রহাকদের সন্তুষ্টি অর্জন করতে পারে। তিনি তৃণমূল পর্যায়ে মানুষের কাছে অর্থ প্রবাহ পৌঁছে দিতে গ্রামীণ পর্যায়ে আরো শাখা খোলার জন্য ব্যাংকগুলোর প্রতি আহবান জানান।

জনতা ব্যাংক চেয়ারম্যান লুনা শামসুদ্দোহা বলেন, জনতা ব্যাংক সাধারণ মানুসের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। দেশব্যাপী সকল শ্রেণী মানুষের ব্যাংকিং সেবা দিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, গ্রাহকদের আন্তর্জাতিক মানের সেবা দিতে আমরা ব্লক চেইন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং ইন্টারনেট ব্যবহারসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছি।

এসবিসি/এসবি