নৌ-মন্ত্রীর পদত্যাগ চেয়েছে বিএনপি

নৌ-মন্ত্রীর পদত্যাগ চেয়েছে বিএনপি

এসবিসি ডেস্ক : গত রবিবার রাজধানীর কুর্মিটোলায় উড়াল সেতুর ঢালে শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল ও কলেজের অপেক্ষমান দুই শিক্ষার্থী বাসচাপায় নিহত হওয়ার ঘটনায় নৌ-মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছে বিএনপি। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক বিবৃতিতে নিরাপদ সড়ক ও ঘাতক বাসচালকের শাস্তিসহ ৯ দফা দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে উদ্ভুত পরিস্থিতি সামাল দিতে সরকারের ব্যর্থতায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন,  “বাংলাদেশে বর্তমান সরকার সকল ক্ষেত্রে সীমাহীন ব্যর্থতায় পর্যবসিত। সরকারের প্রশ্রয়ে দুস্কৃতিকারিদের দাপট এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, এই দেশে এখন মানুষের জীবন-জীবিকা চরমভাবে নিরাপত্তাহীন। মানুষের ক্ষোভের আঁচ উপলব্ধি করতে পারে না বলেই সরকার গণবিরোধী বেপরোয়া কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হয়ে পড়েছে। কোমলমতি কিশোর-কিশোরী ছাত্র-ছাত্রীদেরও জীবন ঝরে পড়াটাও দু:শাসনের ফলশ্রুতি। শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল ও কলেজের দুই শিক্ষার্থী বাসচাপায় নিহত হওয়ার পরে যখন সমগ্র বাংলাদেশের মানুষ বেদনার্ত, শোকাহত ও ক্ষুদ্ধ, তখন ছাত্র-ছাত্রীর লাশ নিয়ে নৌ-মন্ত্রীর হাসি যেন বিদ্রুপের হাসি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘নৌ-মন্ত্রী শাহজাহান খান পরিবহন সেক্টরের একজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা। তার আশকারায় দীর্ঘদিন ধরে এই সেক্টরে অরাজকতা লেগেই আছে। কিছু প্রশিক্ষণহীন অদক্ষ চালক ও লাইসেন্সবিহীন কমবয়েসী চালক এবং চলাচলে অনুপযুক্ত যানবাহনের প্রাধান্য থাকলে সড়ক-মহাসড়কে মরণঘাতি ঘটনা আশঙ্কাজনক হারে বাড়তেই থাকবে। আর এগুলো প্রাধান্য পাচ্ছে শুধুমাত্র নৌ মন্ত্রী শাহজাহান খানের প্রশ্রয়ে। বাসচাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল ও কলেজের দুই শিক্ষার্থী’র হৃদয়বিদারক মৃত্যুতে দেশজুড়ে মানুষ ক্ষোভে ফেটে পড়লেও তাতে সরকারের বিন্দুমাত্র টনক নড়েনি, বরং বেপরোয়া বাসচালকের দ্বারা এই মর্মান্তিক হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে আন্দোলনরত ছাত্র-ছাত্রীদের লক্ষ্য করে গুলি, টিয়ার গ্যাস ও বেধড়ক লাঠিচার্জে যেভাবে ক্ষতবিক্ষত করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তা কেবল নিষ্ঠুর স্বৈরশাসকদের দ্বারাই সম্ভব। ন্যায় বিচার না পাওয়া, বঞ্চিত, প্রতিবাদী ছাত্র-ছাত্রীদেরকে হিংস্র আক্রমণে আহত করার পর অনেককে গ্রেফতারও করা হয়েছে।’

বিএনপি মহাসচিব আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর অমানবিক আক্রমণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। অবিলম্বে গ্রেফতারকৃত শিক্ষার্থীর মুক্তি দাবি করেন তিনি।

 

এসবিসি/এসবি