হকিতে জয়ী মেরিনার্স

হকিতে জয়ী মেরিনার্স

এসবিসি স্পোর্টস রিপোর্ট : গ্রিন ডেল্টা ইনস্যুরেন্স প্রিমিয়ার ডিভিশন হকি লীগে সোনালী ব্যাংক’কে ২-১ গোলে হারিয়েছে মেরিনার্স ক্লাব। আজ বুধবারের প্রথম ম্যাচ নির্ধারিত সময়ের অনেক পরে শেষ হয়। যে কারনে দিনের দ্বিতীয় মোহামেডান-ঊষা’র মধ্যকার ম্যাচটি সম্পূর্ণ অনুষ্ঠিত পারেনি। আলোর স্বল্পতার কারণে খেলা বন্ধ ঘোষণা করা হয়। ম্যাচের বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে।

মওলানা ভাসানী জাতীয় হকি স্টেডিয়ামে মেরিনার্স বনাম সোনালী ব্যাংকের ম্যাচটিতে নানা জটিলতার কারনে খেলা বন্ধ হয়েছে পাঁচবার। পুনরায় খেলা শুরুর জন্য অপেক্ষা আধ ঘন্টা পর্যন্ত। ম্যাচ শেষ করতে এক ঘণ্টা সময় বেশি ব্যয় হয়েছে। বেশ কয়েক দফা উভয় দলের খেলোয়াড়দের কারণে খেলায় বিঘ্ন ঘটে। প্রথমবার খেলার ১২ মিনিটে মেরিনার্সের পক্ষে একটি পেনাল্টি স্ট্রোককে কেন্দ্র করে উত্তেজনা দেখা দেয়। পুনরায় খেলা শ্যরু হলে গোলের দেখা পায় মেরিনার্স। স্ট্রোক থেকে গোল করেন মেরিনার্সের আশরাফুল। ম্যাচে ১-০ তে এগিয়ে যায় দলটি। প্রথমাধের আর গোলের দেখা পায়নি কোন দল। দ্বিতীয়ার্ধে ৪৮ মিনিটে গোল শোধ করেন সোনালী ব্যাংকের তাহের আলী। সোনালী ব্যাংকের এই গোল্টি নিয়ে বাঁধে বিরোধ। হকি মাঠে শুরু হয় উভয় দলের খেলোয়াড়দের হাতাহাতি। আম্পায়ার মারামরির জন্য মেরিনার্সের কৌশিক ও সোনালী ব্যাংকের পাকিস্তানি ইহসান উল্লাহ খানকে লালকার্ড দেখাতে বাধ্য হন। তৃতীয় দফা খেলা শুরু হয় ফেডারেশন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে। শেষ পযন্ত মেরিনার্সের জয় আসে। পেনাল্টি কর্নার থেকে দলের জয়সূচক গোল করেন আরশাদ।

অন্যদিকে মোহামেডান-ঊষার খেলায়ও আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে বাকবিতণ্ডা দেখা দেয়। ম্যাচের শ্রীলঙ্কার আম্পায়ার নওশাদ সহযোগী আম্পায়ারকে নিয়ে মাঠ ছেড়ে চলে যান। খেলোয়াড়েরা পরে আম্পায়ারেরই কাছে ক্ষমাচাইলে খেলা পুনরায় শুরু হয়। তবে আলোর স্বল্পতায় খেলা শেষ হতে পারেনি।

এসবিসি/এমএল/এসবি