অনূর্ধ্ব-১৮ এশিয়া কাপ হকি টুর্নামেন্টের স্পন্সর বেক্সিমকো

অনূর্ধ্ব-১৮ এশিয়া কাপ হকি টুর্নামেন্টের স্পন্সর বেক্সিমকো

এসবিসি স্পোর্টস রিপোর্টঃ বাংলাদেশে আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর হতে শুরু হবে চতুর্থ অনূর্ধ্ব-১৮ এশিয়া কাপ হকির আসর। এবারের আসরে অংশ নেবে মোট সাতটী দল। দলগুলো হচ্ছে- ভারত, পকিস্তান , বাংলাদেশ , চীন, ওমান, তাইপে ও হংকং। মাওলানা ভাসানি জাতীয় হকি স্টেডিয়ামে সবগুলো ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। গ্রুপ ভিত্তিক এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ আছে পুল ‘এ’তে। এর গ্রুপের অপর দল ভারত, ওমান।পুল ‘বি’তে খেলবে পাকিস্তান, চীন, চাইনিজ তাইপে ও হংকং। উদ্বোধনী দিনেই বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে ভারতের। গ্রুপে স্বাগতিক দলের পরবর্তী খেলা ২৭ সেপ্টেম্বর ওমানের বিপক্ষে।সিরিজের স্পন্সর দেশের বড় কর্পোরেট হাউজ বেক্সিমকো।

আসন্ন চতুর্থ অনূর্ধ্ব-১৮ এশিয়া কাপ হকির আসরকে সামনে রেখে আজ এক সংবাদ সন্মেলনের আয়োজন করে বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি খাজা রহমতউল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক আবদুস সাদেক, পৃষ্টপোষোক বেক্সিমকো গ্রুপের ডাইরেক্টর এবং পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড এলএনজি বিভাগের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আজমল কবির সহ অন্যান্য ফেডারেশন কর্মকর্তা। চতুর্থ অনূর্ধ্ব-১৮ এশিয়া কাপ হকির স্পন্সরকারী প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো গ্রুপের ডাইরেক্টর এবং পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড এলএনজি বিভাগের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আজমল কবির তার বক্তব্যে বলেন, ‘আমরা হকি ফেডারেশন পাশে আছি। ফেডারেশন আমাদের যে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা দিয়েছে তাতে আমরা সন্তুষ্ট। হকির অগ্রযাত্রায় আমরা আশাবাদী। অদূর ভবিষ্যতে হকি একদিন ক্রিকেটের  অবস্থানে পৌঁছাবে বলে মনে’।

যুবাদের এই  টুর্নামেন্টের প্রথম আসর বসেছিল বাংলাদেশে ২০০১ সালে। প্রথম আসরে বাংলাদেশ তৃতীয় স্থান অধিকার করে। এরপরের দুই আসরে অংশ নেয়া থেকে বিরত থাকে বাংলাদেশ। হকি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি খাজা রহমতউল্লাহ বলেন, আমাদের প্রত্যাশা আমরা ফাইনালে খেলবো। ভারত অনেক শক্তিশালী দল। তাদেরকে হারানো কঠিন হলেও আমরা আমাদের দল নিয়ে এবার আশাবাদী। দল গত দুই মাস যাবত বিকেএসপিতে কঠোর অনুশীলন করছে আমাদের ছেলেরা। তাদের পরিশ্রমের ফল ভাল হবে আশা রাখছি’।
এসবিসি/এমএল